মঙ্গলবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:১৪ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
বিডি ২৪ ক্রাইম সাথে থাকুন। আপডেট খবর পড়ুন

আগামীকাল থেকে ময়মনসিংহ-ঢাকা মহাসড়কে বাস চলাচল বন্ধ

রির্পোটারের নাম / ১৪৯ বার প্রিন্ট / ই-পেপার প্রিন্ট / ই-পেপার
আপডেট সময় :: শনিবার, ১৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৯:১৭ অপরাহ্ণ

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুর থেকে উত্তরা পর্যন্ত রাস্তা চলাচল অনুপযোগী থাকায় রবিবার থেকে এই রোডে সকল ধরণের বাস চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। শনিবার রাতে ময়মনসিংহ জিলা মটর মটর মালিক সমিতির সভাপতি কেন্দ্রীয় পরিবহন মালিক সমিতির সহ-সভাপতি মমতাজ উদ্দিন মন্তা এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তবে আঞ্চলিক সড়কগুলোতে নিয়মিত বাস চলাচল করবে।
তিনি বলেন, বৃহত্তর ময়মনসিংহের (ময়মনসিংহ, জামালপুর, নেত্রকোণা, শেরপুর ও কিশোরগঞ্জ) একমাত্র চলাচলের রাস্তা ঢাকা- ময়মনসিংহ মহাসড়ক এই অঞ্চলের মানুষের জন্য মহাদুর্ভোগ। ময়মনসিংহ থেকে গাজীপুরের সালনা পর্যন্ত সোয়া ঘন্টা সময় লাগলেও মাত্র ৩০ মিনিটের পথ সালনা থেকে উত্তরা পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার পথ যেতে থেকে ৫ ঘন্টা পর্যন্ত সময় লাগে। এই রাস্তার কাজ ঢিলেঢালা ভাবে এগুচ্ছে এবং খানাখন্দের কারণে গাড়ি
চলাচলে অসহনীয় সমস্যা। তিনি আরো বলেন এই রাস্তাাটির উন্নয়নে ৩ বছর মেয়াদ চলমান কাজ এখন ৬ বছর চলছে। ৬ বছরে মাত্র ৬৩ ভাগ হয়েছে। ২ হাজার ৩৭ কোটি টাকার উন্নয়ন ব্যয় এখন ৪ হাজার কোটি টাকায় পৌছেছে। তিনি আরো বলেন, আমরা রাতারাতি উন্নয়ন চাইনা, চলাচল উপযোগী চাই। দুর্ভোগ সৃষ্টিকারী ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের
গাফিলতির কারণে এই জনদুর্ভোগ। আমরা সরকারের বিরুদ্ধে নই। যে ঠিাকাদারী প্রতিষ্ঠান
দুর্ভোগ সৃষ্টির অন্তরায় আমরা তার বিরুদ্ধে। তিনি আরো বলেন, এই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান যান চলাচল উপযোগী করার জন্য টাকা উত্তোলন করছে। এরপরও প্রতিষ্ঠানটি যান চলাচল
উপযোগী করছে না। এছাড়া ট্রাফিক ব্যবস্থার উন্নতি না হওয়ায় আমরা এই ধর্মঘটে যেতে বাধ্য হয়েছি। তিনি আরো বলেন, এর আগে গাজীপুরের সালনা থেকে টঙ্গী পর্যন্ত ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে শ্লথ গতির উন্নয়নে জনদুর্ভোগ নিরসনে অবিলম্বে দৃশ্যমান উদ্যোগ গ্রহণের দাবিতে ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি ও ময়মনসিংহ জিলা মটর মালিক সমিতির যৌথ আয়োজনে গত ২ জানুয়ারী ময়মনসিংহ প্রেসকাবে সংবাদ সম্মেলনের করে ১৫ তারিখের মধ্যে এই রাস্তাটি চলাচল উপযোগী করার দাবিতে আল্টিমেটাম দেয়া হয়েছিল। ১৫ জানুয়ারী পর্যন্ত কোন উদ্যোগ না নেয়ায় আজ থেকে এই ধর্ম চলবে। মমতাজ মন্তা আরো বলেন, ঢাকা- ময়মনসিংহ হাইওয়েতে প্রতি মিনিটে ৭টি গাড়ি চলে। যা ঘন্টায় ৪২০ এবং ২৪ ঘন্টায় ১০ হাজার ৮০টি। এ সব যানবাহন চলাচলে রাস্তা খারাপের কারণে স্বাভাবিকের চেয়ে প্রতিটি গাড়িতে ২০ লিটার বেশি তেল লাগে। এতে করে ১০ হাজার ৮০টি গাড়িতে ২ লাখ এক হাজার ৬শত লিটার তেল অপচয় হচ্ছে। যা অর্থের হিসাবে ৮০ টাকা লিটার হিসাবে প্রতিদিন এক কোটি ৬১ লাখ ২৮ হাজার টাকা। তেল বাবদ এই টাকা মালিকদের আয় থেকে নষ্ট হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, শুধু তেল খাতে নয়, গাড়ির টায়ার, যন্ত্রাংশ মেরামতসহ বিভিন্ন খরচ আরো অনেকগুনে বেড়ে যাচ্ছে। এতে পরিবহন শিল্পের মালিকগণ মারাত্বকভাবে তিগ্রস্থ হচ্ছে। অনেক মালিকগণ গাড়ির কিস্তি পরিশোধেও হিমশিম খাচ্ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মতামত লিখুন
Theme Created By ThemesDealer.Com