শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৩:২০ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
বিডি ২৪ ক্রাইম সাথে থাকুন। আপডেট খবর পড়ুন

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের দুইপাশের বালু অপসারনে ট্রাক চালকদের সাথে প্রশাসনের মতবিনিময়

রির্পোটারের নাম / ৫০ বার প্রিন্ট / ই-পেপার প্রিন্ট / ই-পেপার
আপডেট সময় :: শনিবার, ৫ মার্চ, ২০২২, ৯:৪৩ অপরাহ্ণ

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের দুপাশে বেআইনীভাবে বালু (নির্মাণ সামগ্রী) রাখায় জনচলাচলে মারাত্বক দুর্ভোগ ও সড়ক দুর্ঘটনা রোধে উপজেলা প্রশাসন ও কোতোয়ালী মডেল থানার উদ্যোগে মটরযান কর্মচারী ও ট্রাক চালকদের সাথে মত বিনিময় অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার দুপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের মটযান কর্মচারী ইউনিয়নের চুরখাই শাখায় এই মতবিনিময় হয়।
অভিযোগের মতে, মহাসড়কের দিঘারকান্দা থেকে ভরাডোবা পর্যন্ত রাস্তার দুইপার্শে দীর্ঘদিন ধরে বেআইনীভাবে বালু রেখে ব্যবসা করে আসছে একটি চক্র। ঐ বালু রাস্তাজুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ায় নানা সমস্যা, সড়ক দুর্ঘটনা বাড়ছে। একই সাথে রাস্তার দুপাশে দুটি করে সারিবদ্ধভাবে খালি ট্রাক ও যানবাহন রেখে ৪ লেন সড়কের ২ লেনেরও বেশি রাস্তা দখল করে রাখায় যান চলাচলে সমস্যা ক্রমেই বাড়ছে। ফলে সড়ক দুর্ঘটনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রায় প্রতিদিনিই ঘটছে দুঘর্টনা। রাসÍার পাশে বালু রেখে বেআইনি ব্যবসা বন্ধকরণসহ ৪ লেন সড়কের ২ লেনে সারিবদ্ধ ট্রাক ও যানবাহন রাখা বন্ধ করণে উপজেলা প্রশাসন ও কোতোয়ালী মডেল থানার উদ্যোগে মত বিনমিয় হয়।
সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন, শুধুমাত্র ঢাকা- ময়মনসিংহ হাইওয়ে ছাড়া দেশের অন্য কোন হাইওয়ের পাশে এভাবে বালু বা নির্মাণ সামগ্রী রাখার নজির নেই। এছাড়া ৪ লেন সড়কের দুই লেন জুড়ে সারিবদ্ধভাবে যানবাহন রাখা হচ্ছে। রাস্তার পার্শে বালু ও যানবাহন রাখায় প্রতিনিয়ত সড়ক দুর্ঘটনা বাড়ছে। ট্রাক চালকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা আরো মানবিক হোন। সাময়িক লাভ বাদ দিয়ে মানবিকতাকে বিকশিত করতে হবে। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। ৪ লেন সড়ক ১০ লেন হবে। যার সুবিধা সবাই পাবে। আমরা সবাই রাষ্ট্রের কল্যাণে কাজ করি। এগিয়ে যাওয়ার আগে আমরা কাউকে হারাতে চাই না। ট্রাক চালক শ্রমিকদের দাবির প্রেক্ষিতে তিনি আরো বলেন, ট্রাক টার্মিনাল স্থাপনে উদ্যোগ নেয়া হবে।
কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি শাহ কামাল আকন্দ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত ইচ্ছায় ঢাকা-ময়মনসিংহ ৪ লেন হয়েছে। এই ৪ লেন সড়ক রক্ষার দায়িত্ব সকলের। রাস্তার দুই পাশে বেআইনীভাবে বালু রেখে সৃষ্ট জনসমস্যা ও দুর্ঘটনা রোধে সম্মিলিত চেষ্ঠা করতে হবে। তিনি আরো বলেন, ধারণ ক্ষমতার বাইরে লোড করায় যানবাহন ও রাস্তার ক্ষতি দুটোই হচ্ছে। এটা কোনভাবে চলতে দেয়া হবে না। মহাসড়কের ময়মনসিংহ সদর অংশে রাখা বালু আগামী দুই দিনের মধ্যে অপসারণ করতে হবে। অন্যথায় আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে। একই সাথে চুরখাই পাঁচ রাস্তার মোড়ে মহাসড়কে সিএনজি, মাহিন্দ্র, ইজিবাইক রাস্তার বাইরে রাখতে হবে। এ জন্য সকলের সহযোগীতা প্রয়োজন।
প্রশাসনের বেধে দেয়া সময়সীমার মধ্যে বালু অপসারণ, রাস্তা বালু না রেখে নিজস্ব জায়গা বালু রেখে ব্যবসা করতে ট্রাক চালকরা একমত পোষণ করে বলেন, দুর্গাপুরে ট্রাক ভর্তি বালু বোঝাই রয়েলটি নামীয় ফি ৬ থেকে সাত হাজার হওয়ায় তারা বাধ্য হয়েছে অভারলোড করছে। বর্তমানে প্রতিটি ট্রাকে সাত শত ফুট পর্যন্ত বালু বোঝাই হচ্ছে।
জেলা মটরযান কর্মচারী ইউনিয়নের কার্যকরী সভাপতি মোজাম্মেল হক মানিকের সভাপতিত্বে ঘাগড়া ইউপি চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান, ভাবখালী ইউপি চেয়রম্যান আব্দুছ ছাত্তার সোহেল, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আলী হোসেন, চুরখাই শাখার মোঃ নুরে আলম, শহিদুল ইসলামসহ অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মতামত লিখুন
Theme Created By ThemesDealer.Com