মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:০৮ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
বিডি ২৪ ক্রাইম সাথে থাকুন। আপডেট খবর পড়ুন

দেশের অগ্রযাত্রাকে ধরে রাখতে যুব সমাজকে সঠিক ভাবে পরিচালিত করতে হবে-রেঞ্জ ডিআইজি

রির্পোটারের নাম / ৫০ বার প্রিন্ট / ই-পেপার প্রিন্ট / ই-পেপার
আপডেট সময় :: মঙ্গলবার, ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ৮:২১ অপরাহ্ণ

রঞ্জন মজুমদার শিবু : মুজিব শতবর্ষ ময়মনসিংহ জেলা রেটেড দাবালীগ-২০২১ শেষে পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে পুলিশ লাইন্সে ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসাবে আনুষ্ঠানিকভাবে দাবা লীগের বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন রেঞ্জ ডিআইজি (পদোন্নতি প্রাপ্ত অতিরিক্ত আইজিপি) ব্যারিস্টার হারুন অর রশিদ বিপিএম।
এসময় তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অপ্রতিরোদ্ধ গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। এই অগ্রযাত্রাকে ধরে রাখতে হলে যুব সমাজকে সঠিক ভাবে পরিচালিত করতে হবে। তারা যেন আতœনির্ভরশীল হয়ে দেশ গড়ার কাজে ভূমিকা রাখতে পারে। তিনি আরো বলেন, খেলাধুলা শারিরীক ও মানষিক উৎকর্স বৃদ্ধি করে। যুব সমাজকে মাঠে নিয়ে আসতে হবে। খেলার মাঠ গরম রাখতে পারলে মাদক সহ অন্যান্য অপরাধ থেকে যুব সমাজকে রক্ষা করা সম্ভব। ডিআইজি আরো বলেন, দাবা আন্তর্জাতিক খেলা। এই খেলা শারিরীক নয় মেধার খেলা। এতে বুদ্ধি বাড়ে। বুদ্ধিভিত্তিক এই দাবা খেলাকে তার গৌরবের অবস্থানে আনতে ক্রীড়াপ্রেমি আইজিপি ডঃ বেনজীর আহমেদ নিজে দায়িত্ব নিয়েছেন। যাতে দাবা খেলায় আবারো প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে আসে।
পুলিশ সুপার মোহাঃ আহমার উজ্জামান এর সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মোঃ এহতেশামুল আলম প্রমুখ। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফালগুনী নন্দীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ হাফিজুর রহমান, সাবেক দাবা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান, সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক সুব্রত দাস (নীতিশ)।
জেলা প্রশাসক বলেন, দাবা ঐতিয্যবাহী ও বিনোদন মূলক খেলা। এ খেলায় শারিরিক পরিশ্রম না হলেও মানসিক পরিশ্রম হয়। তিনি আরো বলেন, দ জনশক্তি ও সুস্থ্য জাতির জন্য খেলাধুলার প্রয়োজন আছে। বর্তমান যুব সমাজকে মাদক থেকে দুরে রাখতে খেলাধুলা করতে হবে।
সভাপতির বক্তব্যে পুলিশ সুপার বলেন, দাবা একটি অন্যতম খেলা। ইতোমধ্যে দাবা লীগ প্রাণ ফিরে পেয়েছে। মাদকমুক্ত যুব সমাজ এবং আগামী দিনের ভবিষ্যত যুবদেরকে সঠিক পথে পরিচালিত করতে খেলাধুলার বিকল্প নেই। খেলাধুলা যুব সমাজকে সঠিক পথে পরিচালিত করে এবং সুষ্ঠ জীবনবোধের চর্চা এনে দেয়। এর মাঝে দাবা খেলা আরো বেশি। ক্রীড়াঙ্গন সুখকর থাকলে যুব সমাজ সুষ্ঠ অবস্থায় থাকবে। দাবা টুর্ণামেন্ট সম্পর্কে পুলিশ সুপার বলেন, দাবা হলো মেধাভিত্তিক খেলা। দাবা খেলা দেশের মান মর্যাদা বাড়িয়েছে। শুধুমাত্র পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে দাবা পিছিয়ে পড়েছে। ঐতিহ্য বহনকারী জনপ্রিয় এই দাবা খেলাকে আবারো পুর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ডঃ বেনজীর আহমেদ দায়িত্ব নিয়েছেন। পুলিশের প থেকে সকল ধরণের সহযোগীতা ও পৃষ্ঠপোষকতা অব্যাহত থাকবে বলে দাবি করে তিনি দাবারো, সংগঠক সকলকে ধন্যবাদ জানান।
জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক এহতেশামুল আলম বলেন, ময়মনসিংহ দাবা খেলোয়ার তৈরীর চারণভুমি। এখন থেকে দাবা প্রতিযোগীতা নিয়মিত করা হবে। যাতে ময়মনসিংহ থেকে জাতীয় পর্যায়ের দাবারো তৈরী হয়।
উল্লেখ্য ১৪ দলে ৭৫ জন খেলোয়াড় প্রতিযোগীতায় অংশ নেন। এর মাঝে ৩০ রেটেড ছিল। প্রতিযোগীতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন দি চেস কিং। রানার আপ দাবা ত্রয়ী অগ্রজ স্মরণ সংঘ এবং তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে মোহামেডান স্পোটিং কাব ময়মনসিংহ। টুর্ণামেন্টে সেরা দাবারু হয়েছেন সুব্রত বিশ্বাস, সর্ব কনিষ্ঠ দাবারু ছিলেন রায়হান রশিদ মুগ্ধ। এছাড়া সর্ব প্রবীণ দাবারু ছিলেন মোঃ আব্দুল গফুর এবং ময়মনসিংহে সেরা দাবা কাব সংগঠক দাবা ত্রয়ী অগ্রজ স্মরণ সংঘের সভাপতি ওসমান গনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মতামত লিখুন
Theme Created By ThemesDealer.Com