শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৫:০৫ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
বিডি ২৪ ক্রাইম সাথে থাকুন। আপডেট খবর পড়ুন

লালমনিরহাটে জাতীয় শোক দিবসে যুবলীগ সভাপতি সম্পাদকের উপস্থিতিতে সাইদীর জন্য মোনাজাত

রির্পোটারের নাম / ১৫ বার প্রিন্ট / ই-পেপার প্রিন্ট / ই-পেপার
আপডেট সময় :: রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০২৩, ১২:৩৯ অপরাহ্ণ

এস,আর শরিফুল ইসলাম রতন, লালমনিরহাট

লালমনিরহাট চেম্বার অব কমার্স আয়োজিত শোক দিবসের দোয়া মাহফিলে জেলা যুবলীগের সভাপতি সম্পাদকের উপস্থিতিতে সাইদীর জন্য মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।বিষয়টি নিয়ে দলীয় নেতা কর্মীদের মাঝে ব্যাপক আলোড়ন তৈরী হয়েছে।

চেম্বার অব কমার্স লালমনিরহাট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে, মিলাদ শেষে চেম্বার সভাপতি দেলোয়ার হোসেন সাইদীর জন্য মোনাজাত করতে বলেন,চেম্বার সভাপতি এসএ হামিদ বাবুর নির্দেশ পেয়ে শোক দিবসের মোনাজাতে বঙ্গবন্ধুর পাশাপাশি যুদ্ধাপরাধী দেলোয়ার হোসেন সাইদীর জন্য দোয়া করেন পুরান বাজার জামে মসজিদের হুজুর রফিকুল ইসলাম,তিনি মোনাজাতে বাংলার ঘরে ঘরে একজন করে সাইদীর জন্ম হোক সেটি আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ করেন,এসময় দোয়া ও মোনাজাতে অংশ গ্রহন করেন জেলা যুবলীগের সভাপতি চেম্বার অব কমার্সের সিনিয়র সহ সভাপতি মোড়ল হুমায়ুন কবীর এবং যুবলীগ সাধারন সম্পাদক চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক সাখোয়াত হোসেন।

মিলাদ মাহফিলে অন্যদের সাথে উপস্থিত জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আলী হাসান নয়ন এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ করেন, চেম্বার সভাপতি আলী হাসান নয়ন কে এই কারনে ইতর ও বেয়াদব বলেন।জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আলী হাসান নয়নের প্রতিবাদে চেম্বার সভাপতি চেম্বার ভবন ছেড়ে চলে যেতে চাইলে অন্য পরিচালকরা তাকে ফিরিয়ে আনেন এই ঘটনা কে কেন্দ্র করে চেম্বার ভবনে হট্টগোল হয় বলে মিলাদে উপস্থিত মুসল্লিরা নিশ্চিত করেন।

জেলা যুবলীগ সভাপতি মোড়ল হুমায়ুন কবীর এই প্রতিবেদকের কাছে ঘটনার কথা স্বীকার করে বলেন, চেম্বার সভাপতি এস এ হামিদ বাবু সাইদীর জন্য দোয়া করতে বলেন,দোয়া শেষে চেম্বার পরিচালক আলী হাসান নয়ন প্রতিবাদ করলে আমরা তার সাথে এই বিষয়টি প্রতিবাদ করি।এসময় আমার সাথে চেম্বার পরিচালক ও জেলা যুবলীগ সাধারন সম্পাদক সাখোয়াত হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

শোক দিবসের মিলাদ মাহফিলে সাইদীর জন্য দোয়া চাওয়ায় প্রথম প্রতিবাদ কারী, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও চেম্বার পরিচালক আলী হাসান নয়ন বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন কর্মী হিসেবে বঙ্গবন্ধুর সাহাদাৎ বার্ষিকীতে একজন যুদ্ধাপরাধীর জন্য দোয়া করাটা আমার নীতি ও আদর্শের বাহিরে,এই কারনে আমি তীব্র প্রতিবাদ করি এবং তাকে তার কথা প্রত্যাহার করতে বলি। কিন্তু দুঃখের বিষয় সেদিন আওয়ামীলীগের অন্যান্য পরিচালকের উপস্থিতিতে চেম্বার সভাপতি আমাকে ইতর বেয়াদব বলেন।আমি এই প্রতিবাদের কারনে শতবার বেয়াদব হতে রাজি আছি তবু এই ঘটনার প্রতিবাদ থেকে পিছপা হবো না।

সাইদীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করায় আওয়ামীলীগের অঙ্গ সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ লালমনিরহাট জেলা শাখার বিভিন্ন স্থরের ১২নেতা কর্মীকে সাময়িক ভাবে বহিষ্কার সহ স্থায়ী ভাবে বহিষ্কারে সুপারিশ করে জেলা ছাত্রলীগ।১৯আগষ্ট জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদকের যৌথ স্বাক্ষরে বহিস্কিরাদেশের প্রেস রিলিজ দেয় জেলা ছাত্রলীগ।

ছাত্রলীগের ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতাদের সাংগঠনিক শাস্তি হলেও জেলা যুবলীগে সভাপতি , সম্পাদক সহ জেলা আওয়ামীলীগের একাধিক নেতা ঐ দোয়ার অনুষ্ঠানে চেম্বার পরিচালক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,তাদের ব্যাপারে দলীয় সিদ্ধান্ত সহ চেম্বার সভাপতির বিরুদ্ধে অনাস্থা আনার ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত না আসায় আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা হতাশা প্রকাশ করেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।
চেম্বার অব কমার্সের সাবেক সভাপতি (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক)এর সাথে কথা হলে জানান,১৫ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবসের দোয়া মাহফিলে এজেন্ডা ছাড়া সাইদীর জন্য চেম্বার সভাপতি দোয়া চাইতে পারেন না,
জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ সহ আমরা বসে দলীয় সিদ্ধান্ত জানাবো।

চেম্বার সভাপতি শোক দিবসের মিলাদ মাহফিলে যুদ্ধ অপরাধী সাইদীর জন্য দোয়া চাওয়ায় আওয়ামীলীগ নেতা কর্মীদের মনে প্রশ্ন উঠেছে,জেলা বিএনপির সাবেক অর্থ সম্পাদক এস এ হামিদ বাবুর ঘৃনিত কাজের বিচার হবে কিনা সন্দেহ রয়েছে,কারন তাকে রক্ষা করতে জেলা আওয়ামীলীগের কয়কজন সদস্য এবং চেম্বার পরিচালক নানা সুবিধা গ্রহন করে থাকেন তার কাছ থেকে,তাই তারা তাকে রক্ষা করতে তৎপর রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মতামত লিখুন
Theme Created By ThemesDealer.Com