বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৭:০৯ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
বিডি ২৪ ক্রাইম সাথে থাকুন। আপডেট খবর পড়ুন

শরিকদের সঙ্গে বৈঠকে শেখ হাসিনা

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৭ বার প্রিন্ট / ই-পেপার প্রিন্ট / ই-পেপার
আপডেট সময় :: সোমবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২৩, ২:৩৮ অপরাহ্ণ

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন দীর্ঘদিনের পুরনো রাজনৈতিক জোট ১৪ দলের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠকে আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জোট শরিকদের মধ্যে আসন ভাগাভাগি নিয়ে সিদ্ধান্ত হবে। সোমবার (৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ১৪ দলীয় জোটের প্রধান শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গত ১৫ নভেম্বর দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল। ভোট হবে ৭ জানুয়ারি। এবারের ভোটেও নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের সঙ্গে জোটগতভাবে ভোট করার কথা জানিয়ে ১৪ দলের ছয়টি দল নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিয়েছে। এদিন তফসিল ঘোষণার পর মাত্র দুটি আসন ছেড়ে ২৯৮ আসনেই প্রার্থী দিয়েছে আওয়ামী লীগ। এই দুই আসন হলো জাসদের হাসানুল হক ইনুর কুষ্টিয়া-২ ও জাতীয় পার্টির সেলিম ওসমানের নারায়ণগঞ্জ-৫।

এবার ১৪ দলের শরীকদের জন্য আওয়ামী লীগ কতটি আসনে ছাড় দেবে তা বৈঠকে সিদ্ধান্ত হবে বলে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে ২০০৪ সালে গঠিত হয় ১৪ দলীয় জোট। এই জোটে রয়েছে- জাসদ (ইনু), সাম্যবাদী দল, গণতান্ত্রিক মজদুর পার্টি, গণতন্ত্রী পার্টি, ন্যাপ, গণআজাদী লীগ, কমিউনিস্ট কেন্দ্র, বাসদ, তরিকত ফেডারেশন, জেপি।

তফসিল অনুযায়ী, যাচাই-বাছাই শেষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৭ ডিসেম্বর। জোটের শরিকদের আসন ছাড় দিলে ওই দিনের আগেই নৌকার প্রার্থীকে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিতে। প্রতীক বরাদ্দ হবে ১৮ ডিসেম্বর। আর ওই দিন থেকেই প্রার্থীরা প্রচার শুরু করতে পারবেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের এসেট প্রকল্পের আওতায় শর্ট কোর্স প্রশিক্ষণ পরিচালনার জন্য স্কিল ডেভেলপমেন্ট প্রোপজাল (এসডিপি) এর উপর পর্যালোচনা বিষয়ক কর্মশালার উদ্বোধন। দুইদিন ব্যাপী এই কর্মশালায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকগণ উপস্থিত ছিলেন। সোমবার (৪ ডিসেম্বর ২০২৩ ) বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে এসেট প্রকল্পের আওতায় শর্ট কোর্স প্রশিক্ষণ পরিচালনার জন্য স্কিল ডেভেলপমেন্ট প্রোপজাল (এসডিপি) এর উপর পর্যালোচনা বিষয়ক কর্মশালা শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক সালেহ আহমদ মোজাফফর। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন অ্যাসেট এর প্রকল্প পরিচালক আবু মমতাজ সাদ উদ্দিন আহমেদ। জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক সালেহ আহমদ মোজাফফর বলেন, বর্তমান সরকারের কর্মমুখী শিক্ষা বাস্তবায়নে দেশব্যাপী কাজ করে চলেছে। এটি মূলত স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের একটি রূপকল্প ও ভিশন ২০৪১ এর উন্নয়ন পরিকল্পনা।

প্রকল্প পরিচালক আবু মমতাজ সাদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, কারিগরি শিক্ষা, সচ্ছল হবার দীক্ষাই এই কার্যক্রমের মূল লক্ষ্য। আমরা বর্তমান সরকারের কর্মমুখী শিক্ষা বাস্তবায়নে দেশব্যাপী কাজ করে যাচ্ছি। এই প্রকল্পের মাধ্যমে বিপুল সংখ্যক জনগোষ্ঠীকে কর্মমূখী ও সচ্ছল করে গড়ে তোলা সম্ভব হবে। এই প্রকল্প মূলত স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের একটি রূপকল্প ও ভিশন ২০৪১ এর উন্নয়ন পরিকল্পনা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জিয়াউদ্দিন আল মামুন, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর অতিরিক্ত মহাপরিচালক আশরাফুল ইসলাম, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের যুগ্ন সচিব ফাতেমা জাহান, অতিরিক্ত প্রকল্প পরিচালক ও উপসচিব আব্দুর রহিম, উপপ্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী বি. এম. শরিফুল ইসলাম প্রমূখ।

দুইদিনব্যাপী এই কর্মশালায় অংশগ্রহণকারীরা নিজেদের বক্তব্য উপস্থাপন করেন। প্রকল্পের আওতায় শর্ট কোর্স প্রশিক্ষন পরিচালনার জন্য কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ, শিক্ষা মন্ত্রণালয় হতে ৮৩ সরকারি প্রতিষ্ঠানে শর্ট কোর্স পরিচালনার জন্য অনুমোদন দেওয়া হয়। যার মধ্যে রয়েছে ৪০ টি টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার ( টিটিসি ),৪০ টি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ ( টিএসসি ), নেকটার , বগুড়া এবং শিল্প মন্ত্রনালয়াধীন ২ টি প্রতিষ্ঠান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মতামত লিখুন
Theme Created By ThemesDealer.Com