শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৫:৫৩ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
বিডি ২৪ ক্রাইম সাথে থাকুন। আপডেট খবর পড়ুন

২০২৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে এসএসসি, এইচএসসি এপ্রিলে: শিক্ষামন্ত্রী

অনলাইন  ডেস্ক: / ৫৪ বার প্রিন্ট / ই-পেপার প্রিন্ট / ই-পেপার
আপডেট সময় :: বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০২৩, ৬:৪৪ পূর্বাহ্ণ

২০২৪ সালে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ফেব্রুয়ারি মাসে। এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা এপ্রিলে নেওয়ার চেষ্টা থাকবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। ২০২৩ সালের এইচএসসি পরীক্ষা শুরুর দিন বৃহস্পতিবার (১৭ আগস্ট) সকালে রাজধানীর ফার্মগেটে তেজগাঁও কলেজ কেন্দ্রে পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলে তিনি।

সাংবাদিকরা শিক্ষামন্ত্রীকে প্রশ্ন করেন, আগামী বছর এইচএসসি পরীক্ষা কোন মাসে শুরু হতে পারে: উত্তরে দীপু মনি বলেন, আগামী বছর আমাদের চেষ্টা থাকবে এপ্রিলে করার। আমাদের চেষ্টা থাকবে। এবারও আমরা চেষ্টা করেছিলাম। অনেক কিছুর ওপর নির্ভর করবে। এসএসসি চেষ্টা করবো আগের মতো ফেব্রুয়ারিতে নিতে।

আজ রাস্তায় যানজট ছিল অনেক বেশি। পরীক্ষার সময় এগিয়ে নেওয়া যায় কিনা, এ প্রশ্নও করা হয় মন্ত্রীকে। জবাবে তিনি বলেন, এসএসসির সময় আমরা করেছিলাম। কিন্তু এইচএসসির সময় দুই বেলা পরীক্ষা। দুই বেলা পরীক্ষা থাকলে দেরিতে শুরু করলে সমস্যা হয়ে যায়। আমরা দেখেছি অনেক বেশি ভিড় হয়, জ্যাম হয়। পরীক্ষার্থীদের অনেক আগে বাসা থেকে বের হতে হয়। দেরি হয়ে গেল কিনা, তাদের মধ্যে অ্যানজাইটি কাজ করে। সেজন্য সময়টা অ্যাডজাস্ট করলে ভালো হয়। কিন্তু দুই বেলা পরীক্ষা থাকলে সেটা আর করা যায় না।

বিভিন্ন কেন্দ্রের পরিবেশ খুবই অগোছালো- এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে দীপু মনি বলেন, আমরা খেয়াল করেছি প্রতি কেন্দ্রের বাইরে অনেক ভিড়। পরীক্ষার্থীদের বাবা-মা-অভিভাবক ভিড় করেন। অবশ্য আমরা যখন পরীক্ষা দিয়েছি, তখনও আমাদের বাবা-মায়েরা এসেছেন। আমরা কাউকে দোষ দিতে পারি না। বাবা-মা যারা আসেন একদম গেটের সামনে দাঁড়িয়ে থাকেন তাহলে অন্য পরীক্ষার্থীদের সমস্যা হয়, তারা যেন একটু দূরে থাকেন। আমি তাদের আহ্বান জানাবো, আপনার সন্তানের মতো অনেকের সন্তানেরা পরীক্ষা দিচ্ছে।

প্রশ্ন ফাঁসের গুজব বা ফাঁস আছে কিনা- প্রশ্নের উত্তরে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এবার নতুন কিছু সমস্যা হবে না বলে আশা করি। পুরনো যে সমস্যা তা যাতে না ঘটে সেজন্য প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আশা করি কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটবে না। সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। গত পাঁচ বছর ধরে প্রশ্ন ফাঁস নেই। গুজবও কমে এসেছে। আশা করি এবারও থাকবে না।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মতামত লিখুন
Theme Created By ThemesDealer.Com